পরিচয় দেন তিন মিডিয়ার সাংবাদিক, পরে জানা গেল বাইক চোর

ফরিদপুরের নগরকান্দায় ইজিবাইক চুরি করে পালানোর সময় মো. আবির হোসেন (৩০) নামে এক কথিত সাংবাদিক জনতার হাতে আটক হন। পরে উত্তেজিত জনতা তাকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। তিনি বর্তমানে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ইজিবাইক চুরি করে পালানোর সময় গণপিটুনির শিকার আবিরের কাছ থেকে নিজের ছবি সম্বলিত দৈনিক প্রথম আলো, কালবেলা ও আনন্দ টিভির ভুয়া পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। ভিজিটিং কার্ড ও পরিচয়পত্রে তিনি নিজেকে শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি হিসেবে পরিচয় দেন।

এলাকাবাসী জানায়, গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নগরকান্দার লস্করদিয়া ইউনিয়নের শহীদ শেখ নামে এক চালক তার ইজিবাইকটি রেখে মসজিদে নামাজ পড়তে যান। এ সময় তার ইজিবাইকটি নিয়ে পালিয়ে যান আবির হোসেন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর এলাকাবাসী ইজিবাইকসহ আইনপুর বাজার থেকে আটক করে গণপিটুনি দেয়।

আনন্দ টিভির ফরিদপুর প্রতিনিধি মনির হোসেন বলেন, আমি আনন্দ টিভির ঢাকা অফিসে যোগাযোগ করেছি। শরীয়তপুরে মো. আবির হোসেন নামে আনন্দ টিভির কোনো প্রতিনিধি নেই। একই কথা বলেছেন কালবেলার প্রতিনিধিও।

প্রথম আলোর ফরিদপুরের নিজস্ব প্রতিবেদক পান্না বালা বলেন, শরীয়তপুরে আমাদের প্রতিনিধির নাম সত্যজিৎ ঘোষ। যে ব্যক্তি নগরকান্দায় আটক হয়েছেন তিনি একজন প্রতারক। তিনি প্রথম আলোর সাংবাদিক নয়।

নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তানসিভ জোবায়ের বলেন, গতকাল শনিবার রাতে স্থানীয় কিছু লোক তাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন। এ সময় তার কাছ থেকে দৈনিক প্রথম আলো, কালবেলা ও আনন্দ টিভির পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। এই পরিচয়পত্র ধরে আমরা তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে পরিবারের খোঁজ পেয়েছি।

নগরকান্দা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিরাজ হোসেন রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা পোস্টকে বলেন, আমাদের কাছে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে এ ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • মঙ্গলবার (দুপুর ২:৩৮)
  • ২৩শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  • ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com