দীর্ঘদিন বন্ধ মানিকগঞ্জের একমাত্র শিশুপার্ক, বখাটেদের আনাগোনা ।

অযত্নে আর অবহেলায় মানিকগঞ্জের একমাত্র মুক্তিযোদ্ধা পৌর শিশু পার্কটি বন্ধ রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে। ফলে পার্কের বিভিন্ন স্থাপনাগুলি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। কোনো ধরনের তদারকি না থাকায় পার্কে বখাটেদের আনাগোনাই বেশি।

এ কারশে শিশুদের নিয়ে পার্কে আসতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে অভিভাবকরা। মূল ফটক বন্ধ থাকায় দূর দুরান্ত থেকে ঘুরতে আসা শিশু ও অভিভাবকরা ফিরে যান হতাশা নিয়ে। অনেকদিন বন্ধ থাকার কারণে গাছপালা লতাপাতায় ভরে গেছে পুরো এলাকা। তার পরেও দর্শনার্থীরা শিশুদের নিয়ে এখানে ঘুরতে আসেন। কিন্তু প্রত্যাশা অনুযায়ী কিছুই পান না তারা। বাচ্চাদের জন্য কোন রাইড নেই, নেই বসার জন্য পরিস্কার পরিচ্ছন্ন কোন সেড।

সরেজমিনে দেখা যায় মূল গেট বন্ধ। দক্ষিণ পাশের ছোট গেইট দিয়ে ঢুকে দেখা যায় জঙ্গল লতাপাতায় পার্কটি ভরে গেছে। পশুপাখির কিছু নিদর্শন থাকলেও বেশীর ভাগ ভাঙ্গাচোরা ও লতাপাতায় ঢাকা। এর মাঝে দেখা যায় বড়দের আনাগোনা। স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা বন্ধুদের নিয়ে আড্ডা দিচ্ছে। এমন পরিবেশে অনেকে শিশুদের নিয়ে পার্কে ঢুকতে সাহস পান না।

 

হরিরামপুর থেকে গিতা রানী তার শিশু পুত্রকে নিয়ে এসেছেন পার্ক দেখাতে। প্রথমে মূল ফটক বন্ধ দেখে ফিরে যেতে চান। পরে ছোট গেট দিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে হতাশ হন।

তিনি জানান, পরিবার নিয়ে তিনি ঢাকায় থাকেন। প্রায় ৫ দিন আগে গ্রামে এসেছেন। আরো কিছুদিন থাকবেন ছেলের অনুরোধে পার্কে এসে হতাশ তিনি। কোনো ধরনের পরিবেশ নেই। বখাটেদের আনাগোনা বেশি।

আরেক দর্শনার্থী সিরাজুল ইসলাম বলেন, এতো সুন্দর জায়গায় পার্কটি করা হয়েছে একটু যত্ন নিলেই শিশুদের আগমনে মুখরিত থাকবে পার্কটি। ভিতরে প্রবেশ করলে বোঝার উপায় নেই এটি পার্ক না কি কোনো পরিত্যাক্ত জায়গা। মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. রমজান আলী বলেন, অল্প দিনের মধ্যেই এই পার্ককে সময়পযোগী করে উম্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com