বগুড়ায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যার একযুগ পর স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

বগুড়ায় যৌতুকের জন্য চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যার একযুগ পর স্বামীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ বগুড়ার বিচারক নূর মোহাম্মদ শারিয়ার কবির এ রায় ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট আশেকুর রহমান সুজন।

তিনি বলেন, যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। তবে রায় ঘোষণার সময় আসামি পলাতক ছিলেন ৷

আদালত সূত্র জানায়, ২০১০ সালের জুনে বগুড়ার শিবগঞ্জের বগলিগাড়ী গ্রামের লতিফুল বারীর মেয়ে মিনা আক্তারের সঙ্গে পাশের গ্রামের জিয়াউর রহমান জিয়ার বিয়ে হয়। দুই লাখ টাকা যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন করে আসছিলেন জিয়া।

২০১১ সালের সালের ৭ অক্টোবর শিবগঞ্জের শোলাগাড়ী গ্রামে শ্বশুরবাড়ি থেকে ছার মাসের অন্তঃসত্ত্বা মিনার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হয়। ওই সময় পুলিশ থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা নিয়ে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। পরে চিকিৎসক ময়নাতদন্তে মিনাকে শ্বাসরোধে হত্যার প্রতিবেদন দাখিল করেন।

মিনার বাবা লতিফুল বারী বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় জিয়াসহ তার বাবা তোজাম্মেল হক, মা জোবেদা বেগম ও দুই ভাইকে আসামি করে মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ২০১২ সালে ২৯ ফেব্রুয়ারি আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। সেখানে মিনার স্বামী জিয়াকে একমাত্র আসামি করে বাকিদের অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

দীর্ঘ ১১ বছর বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে আদালত আজ এ রায় ঘোষণা করেন। আসামিকে ২০১২ সালের ১৭ জানুয়ারি গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তবে তিনি জামিন নেওয়ার পর থেকে পলাতক আছেন।

রায়ের আদেশে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে নিহত মিনার বাবা লতিফুল বারী বলেন, আসামিকে গ্রেফতার করে রায় যেন দ্রুত কার্যকর হয়। আসামি আপিল করলেও উচ্চ আদালতে যেন এ রায় বহাল থাকে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • মঙ্গলবার (সন্ধ্যা ৬:৪৬)
  • ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  • ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com