ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশে শরিয়া আইনে নতুন নির্দেশনা

ইন্দোনেশিয়ার একমাত্র আচেহ প্রদেশে ইসলামি আইন চালু আছে। সেখানকার সরকার সম্প্রতি নতুন এক নির্দেশ জারি করেছে। এতে বিবাহিত না হলে কিংবা প্রথম পক্ষের আত্মীয় না হলে গণপরিবহণ ও পাবলিক প্লেসে পুরুষ ও নারীদের আলাদা থাকতে বলা হয়েছে।

এই বিষয়ে গত সপ্তাহে একটি সার্কুলার জারি করা হয়। ২০৪৫ সালে ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতার শততম বার্ষিকী উদযাপিত হবে।

সেই সময়ের মধ্যে দৈনন্দিন জীবনে ইসলামি মূল্যবোধ মেনে চলে এমন একটি প্রজন্ম গড়ে তোলার লক্ষ্যে এই নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে এএফপিকে জানান আচেহর প্রাদেশিক সরকারের মুখপাত্র মুহাম্মদ এমটিএ।

নির্দেশ না মানলে শাস্তি কী হতে পারে তা স্পষ্ট নয়। আচেহ প্রদেশে জুয়া খেলা, অ্যালকোহল পান ও বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কের অপরাধে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাতের শাস্তি চালু আছে।

এছাড়া বিয়ের আগে বিপরীত লিঙ্গের মানুষের সঙ্গে একা থাকাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ সেখানে। বিচ্ছিন্নতাবাদী অনুভূতি ঠেকাতে ২০০১ সালে আচেহতে শরিয়া আইন চালুর অনুমোদন দেওয়া হয়।নব্বই দশকের শেষ দিকে একনায়ক সুহার্তোর পতনের পর ইন্দোনেশিয়ায় রক্ষণশীল ইসলাম জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • বুধবার (রাত ২:১০)
  • ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com