‘অডিট রিপোর্ট’ দিতে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় পাচ্ছে ব্যর্থ দলগুলো

প্রতিবারের ন্যায় এবারও রাজনৈতিক দলগুলোর বার্ষিক ‘অডিট রিপোর্ট’ প্রকাশ করবে না নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলো অন্তত এক যুগ ধরে বার্ষিক আয়-ব্যয়ের নিরীক্ষিত হিসাব বিবরণী জমা দিলেও কোনো পক্ষই তা বিস্তারিত জনসম্মুখে প্রকাশ করছে না।

এবারও ৪০টি দলের অর্ধেকই নির্ধারিত সময়ে হিসাব বিবরণী জমা দিয়েছে। আর বাকি দলগুলো সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় পাবে।

২০০৮ সালে নিবন্ধন প্রথা চালুর পর থেকে প্রতি বছরের ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আগের পঞ্জিকা বছরের (জানুয়ারি-ডিসেম্বর) স্বীকৃত চার্টার্ড একাউন্টিং ফার্ম দিয়ে নিরীক্ষা করে দলগুলোর আর্থিক আয়-ব্যয় বিবরণী জমা নেয় ইসি। নির্বাচন কমিশনের কাছে দলগুলো প্রতিবেদন জমা দিয়ে শুধু আয়-ব্যয় ও স্থিতির সংখ্যাটুকু জানিয়ে দেয় গণমাধ্যমে। দলীয় ওয়েবসাইটে ও ইসির ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করা হয় না।

আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জেপিসহ নিবন্ধিত ৪০টি দলের মধ্যে অর্ধেক নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে বলে জানান ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ।

তিনি জানান, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জেপিসহ অন্তত ২০টি দল ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিবেদন দিয়েছে। বাকিরা সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন করেছে। কেউ কেউ এক মাস, দেড়-দুই মাস সময়ও চেয়েছে। দলগুলোর আবেদন বিবেচনা করে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়ার পক্ষে কমিশনে ফাইল উপস্থাপন করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে প্রতিবেদন দিতে সময় বাড়বে।

তিনি আরও জানান, টানা তিন বছর অডিট রিপোর্ট জমা না দিলে নিবন্ধন বাতিলের এখতিয়ার রয়েছে ইসি। ২০২১ সালে সব দলই অডিট রিপোর্ট দিয়েছে। তাই চলতি বছর এ ধরনের ঝুঁকির মধ্যে কোনো দল নেই।

২০২২ সালে প্রধান তিন দলের আয়-ব্যয়

আওয়ামী লীগ: ২০২২ পঞ্জিকা বছরে ক্ষমতাসীন দলটি ১০ কোটি ৭১ লাখ ৩৫ হাজার ৭৬৮ টাকা আয় দেখিয়েছে। আর ব্যয় দেখিয়েছে ৭ কোটি ৮৬ লাখ ৮৪ হাজার ৫৭৯ টাকা। তাতে উদ্বৃত্ত থেকেছে ২ কোটি ৮৪ লাখ ৫১ হাজার ১৮৯ টাকা।

বিএনপি: দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ইসি সচিবের কাছে আর্থিক আয় ব্যয় বিবরণী জমা দিয়ে জানান- ২০২২ সালে বিএনপির আয় হয়েছে ৫ কোটি ৯২ লাখ ৪ হাজার ৬৩২ টাকা। মোট ব্যয় হয়েছে ৩ কোটি ৮৮ লাখ ৩৩ হাজার ৮০৩ টাকা। উদ্বৃত্ত ২ কোটি ৩ লাখ ৭০ হাজার ৮২৯ টাকা।

জাপা: জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়ার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলমের কাছে বার্ষিক আর্থিক হিসাব জমা দেন। দলটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, ২০২২ সালে জাপা’র আয় হয়েছে দুই কোটি ২৯ লাখ ১৪ হাজার ৯৬৮টাকা। আর ব্যয় হয়েছে এক কোটি ২৮ লাখ ৩৭ হাজার ৫৪২ টাকা। ব্যাংকে স্থিতি আছে এক কোটি ৭ লাখ ৭৭ হাজার ৪২৬ টাকা।

এর আগে, ২০১৬ সালে আদালত এক রায়ে বলেন- রাজনৈতিক দলের আয়-ব্যয়ের হিসাব প্রকাশে ‘বাধা নেই’। হাইকোর্ট বলেছে, যে কোনো ব্যক্তি কোনো নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের বার্ষিক আয়-ব্যয়ের হিসাব জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশন দলের সম্মতি ছাড়াই তা প্রকাশ করতে পারবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • বুধবার (বিকাল ৩:২৩)
  • ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com