শীতের সকালের অলসতা দূর করবেন যেভাবে

শীতের সকাল মানেই যেনো অলসতা। কখনো সকালের উষ্ণ মিষ্টি রোদ আবার কখনো লেপ মুড়ি দিয়ে ঘুম। অ্যালার্ম বাজতে থাকলেও বিছানা ছেড়ে উঠতে মন চায় না। আর এই ঘুম আপনাকে কখনো কখনো পৌঁছতে দেরি করিয়ে দেয় আপনার কর্মস্থলে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় সকালে বিছানার পাশে রাখা অ্যালার্ম ক্লক আপনি নিজে নিজে বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়ছেন। তবে দিনের শুরুতে সবাইকে তাদের নিজ নিজ কাজে যেতে হয়। দেরি করে ঘুম থেকে উঠলে প্রতিটি কাজ পিছিয়ে যায়। তাই দিনের শুরু হওয়া উচিত সময়মতো এবং প্রাণবন্ত। শীতের সকালে অলসতা কাটিয়ে প্রাণবন্তভাবে দিন শুরু করার কিছু উপায় দেয়া হল:

ঘড়িতে একটি অ্যালার্ম দিন

অনেকেই আছেন যারা মোবাইল ফোনে কয়েকটি সময়ে অ্যালার্ম সেট করে রাখেন। এতে করে কিন্তু আলস্যতা আরও বাড়ে। কারণ কয়েকটি সময়ে এলার্ম সেট করলে ‘পরের এলার্মে উঠব, আরেকটু ঘুমিয়ে নিই’ এরকম মানসিকতা তৈরি হয়। ফলে সময়মতো আর ঘুম থেকে ওঠা হয় না। তাই একটি নিদির্ষ্ট সময়ে এলার্ম সেট করে ঠিক সেই সময়েই ওঠার চেষ্টা করা উচিত।

রুমে পর্যাপ্ত আলো আসতে দিন

রাতে ঘুমানোর আগে জানালার পর্দাগুলো সরিয়ে রাখুন, যেন সকালে আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে আপনার ঘরে আলো প্রবেশ করে এবং আপনার ঘুম ভাঙায়। ঘর অন্ধকার করে রাখলে সহজে ঘুম ভাঙবে না। যেহেতু শীতকালে দিন ছোট এবং রাত বেশ বড় হয় তাই চেষ্টা করুন দিনের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই ঘুম থেকে উঠে পড়তে।

উষ্ণ পানি দিয়ে গোসল

শীতের সকালে ঘুম থেকে উঠলেও অনেকেরই সেই ঘুমঘুম ভাবটা থেকে যায়। যার ফলে দেখা যায় ঠিকমতো কাজে মন দিতে পারছেন না যেমন ঠিক তেমনই মেজাজ ও খারাপ হয়ে আছে। তাই এই জড়তা কাটাতে হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল করে নিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই। দেখবেন আপনি যেমন ফ্রেশ অনুভব করছেন ঠিক তেমনি আপনার ভেতর প্রাণবন্ত ভাব লাগছে।

হালকা ব্যায়াম বা হাঁটার অভ্যাস

ঘুম থেকে উঠেই কিছুক্ষণ হালকা ব্যায়াম বা হাঁটাহাঁটি করুন। এতে ঘুম যেমন ভাঙবে, তেমনি অলসতা দূর হয়ে সতেজ লাগবে। তাই সারাদিনের কর্মব্যস্ততা শুরুর আগে কিছুক্ষণ হাঁটার অভ্যাস বা হালকা ব্যায়ামের অভ্যাস আপনাকে সারাদিনের কাজের জন্য প্রস্তুত করবে। এটা ঘুম ও অলসতা তাড়িয়ে প্রাণবন্তভাবে দিন শুরু করতে সাহায্য করবে।

সকালে স্বাস্থ্যকর নাশতা

সকালের নাশতা দিনের একটি প্রয়োজনীয় অংশ। তাই কখনোই এটি বাদ দেওয়া উচিত না। স্বাস্থ্যকর নাশতার মধ্যে ডিম, গরম দুধ, মধু, মাখন এই সব রাখার চেষ্টা করুন। এই সমস্ত খাবার আপনাকে এই শীতের জড়তা কাটাতে সাহায্য করবে। সাথে সাথে মৌসুমী ফল রাখতে পারেন যা আপনার এনার্জি লেভেল বৃদ্ধি করে আপনাকে শীতের সকালের জড়তা এড়াতে সাহায্য করবে। আর অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করতে হবে।

দিনের শুরুতেই চা কিংবা কফি

শীতের আলসেমি আর জড়তা ভরা সকালকে চাঙ্গা করতে আপনার সঙ্গী হতে পারে এক মগ গরম কফি কিংবা এক কাপ গরম চা। যা আপনাকে সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে সাহায্য করবে। এবং আপনি জড়তা কাটিয়ে পুনরায় কাজে ফিরে যাওয়ার প্রাণশক্তি পাবেন।

শীতের দিনে গরম তেল মালিশ

ত্বকের আর্দ্রতা বাড়াতে এবং রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে গরম তেল মালিশ করে দিন শুরু করুন। বিশেষ করে তিলের তেল মালিশ করলে ভাল ফল মিলবে। গরম তেল মালিশ রক্তসঞ্চালন উন্নত করে,পাশাপাশি, হজমশক্তি উন্নত করে এবং শীতকালে সাধারণ আলস্য কমায়।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ১:৫৩)
  • ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১১ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com