আপনার মানিব্যাগ থেকে টাকা সরান স্ত্রী? এভাবে সমাধান করুন

আপনার টাকায় আপনার স্ত্রীরও অধিকার রয়েছে, একথা সত্যি। কিন্তু সে যদি হিসাব ছাড়াই সারাক্ষণ আপনার টাকা সরানোর ধান্ধায় থাকে, তবে এই অভ্যাস বন্ধ করতে হবে। আপনি হয়তো হিসাব করে টাকা রেখেছেন কোনো একটা কাজের জন্য। কিন্তু কাজটা করতে গিয়ে দেখলেন সেই টাকা মানিব্যাগে নেই! এরকম পরিস্থিতিতে পড়তে না চাইলে আগেভাগেই ব্যবস্থা নিতে হবে। যদি আপনার স্ত্রী সত্যিই প্রয়োজনে পয়সা সরায় তাহলে তার প্রয়োজনীয়তাগুলো মেটানোর চেষ্টা করুন। এছাড়া যদি কেবল স্বভাবের কারণেই এমনটা করে, তবে সতর্ক হোন। জেনে নিন আপনার করণীয়-

বুঝিয়ে বলুনযদি তার এই অভ্যাস আপনার কাছে বিব্রতকর হয় তবে প্রশ্রয় দেবেন না। তাকে বুঝিয়ে বলুন। প্রথমেই আপনার ভালো না লাগার বিষয়টি তাকে বুঝিয়ে বললে সমস্যা বেশি দূর এগোবে না। তবে এজন্য কঠিন গলায় কথা বলার প্রয়োজন নেই। গল্প করতে করতে বুঝিয়ে বলুন। সে যদি বুদ্ধিমতি হয় তবে আপনার সামান্য ইশারায়ই বুঝে যাবে যে এই স্বভাব আপনার পছন্দ নয়।

তার হাতে টাকা দিন​

অনেক বর থাকে যারা স্ত্রীর হাতে কোনো রকম টাকা-পয়সা দিতে চায় না। তাদের ধারণা, খাওয়া-পরার খরচ জোগালেই স্ত্রীর আর কোনো হাত খরচের দরকার হয় না। একটু খেয়াল করে দেখুন তো, আপনার পকেটে পয়সা না থাকলে মেজাজ কেমন হয়ে থাকে? তাই স্ত্রীর এদিকটাও ভাবুন। হয়তো তার সত্যিই প্রয়োজন। তাই মাসের শুরুতেই তাকে আলাদা করে কিছু টাকা দিয়ে রাখুন। এরপর সম্ভবত সে আর আপনার পকেট থেকে টাকা সরাবে না।

টাকা লুকিয়ে রাখুন​

যদি আপনার স্ত্রীর হাতটানের অভ্যাস অর্থাৎ প্রয়োজন ছাড়াও টাকা সরানোর অভ্যাস থাকে তবে আপনার টাকার নিরাপত্তা আপনাকেই নিশ্চিত করতে হবে। সব টাকা মানিব্যাগে না রেখে সরিয়ে রাখুন। এমন স্থানে রাখুন, যেখানকার খোঁজ সে জানে না। আপনার ড্রয়ারেও টাকা লক করে রাখতে পারেন। এতে তার বদ অভ্যাস দূর হবে, আপনার টাকাও নিরাপদ থাকবে।

​তার কাছ থেকেও টাকা সরান

তার সঙ্গে এটি হতে পারে এক ধরনের খেলা। সে যেমন আপনাকে লুকিয়ে আপনার মানিব্যাগ থেকে পয়সা সরায়, আপনিও তেমনটা করতে পারেন। সে যেখানটাতে টাকা রাখে সেখান থেকে আপনিও কিছু কিছু করে টাকা সরাতে থাকুন। আপনার এই অভ্যাস নিয়ে কিছু বললেও আপনিও তখন বলার সুযোগ পাবেন। এতে হয়তো তার এই অভ্যাস বন্ধ হবে।

বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন​

এটি সাধারণ অভ্যাস মনে হলেও অনেক সময় তা নাও হতে পারে। কারণ এটি যদি তার আচরণগত সমস্যা হয় তবে তাকে এক ধরনের অসুখ হিসেবেও ধরে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো হয় একজন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে পারলে। আপনার স্ত্রীর মানসিক অবস্থা বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • বুধবার (বিকাল ৩:০৫)
  • ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com