ধর্মান্তরিত হওয়া নিয়ে যা বললেন অপু বিশ্বাস

ঢালিউড সুপার স্টার শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার সময় অপু বিশ্বাস সনাতন ধর্ম ত্যাগ করেন ইসলাম গ্রহণ করেন বলে মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশ হয়। তখন অপু বিশ্বাস নাম পরিবর্তন করে অপু ইসলাম নাম ধারণ করেন বলেও জানা যায়। শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে বিচ্ছেদ হয়ে গেছে অপুর।

এখন অপু কোন ধর্মে আছেন? এ নিয়ে তার ভক্তদের আগ্রহের কমতি নেই। অপু-শাকিবের সন্তান আব্রাম খান জয় কোন ধর্মের পরিচয়ে বড় হবেন তা নিয়েও অনেকের কেৌতুহল রয়েছে। বিষয়টি স্পষ্ট করেছেন অপু বিশ্বাস।

এ বিষয়ে অপু বলেন, সব ধর্মের প্রতি আমার শ্রদ্ধা রয়েছে। আমার যখন শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে তখন আমি এক ঝলক কাবিননামা দেখে পরে আর তার কোনো হদিস পাইনি। আদালতের মাধ্যমে যেভাবে ধর্মান্তর করা হয় আমার বেলায় সে রকম কিছুই হয়নি।

ইসলাম ধর্মের প্রতি সম্মান রয়েছে জানিয়ে অপু বিশ্বাস বলেন, ঈদ এবং ইসলাম ধর্মের প্রতি আমার যথেষ্ট সম্মান রয়েছে। কিন্তু আমার কখনও ঈদ উদযাপন করা হয়নি। কোরবানি ঈদ থেকে শুরু করে কোনো ঈদে, কোনোদিন কিংবা এখনও আমি গো-মাংস স্পর্শ করিনি। আমার বাসার কাজের লোকদের জন্য আমি খাসি কোরবানির ব্যবস্থা করি।

নাম পরিবর্তন নিয়ে মিডিয়ার খবরে সাবেক শাকিবপত্নী বলেন, মিডিয়াতে আমার নাম অপু বিশ্বাস থেকে অপু ইসলাম খান নামে প্রচার করা হয়েছে। এ নামের পরিবর্তন যেভাবে করতে হয় সেই ধরনের কোনো কিছুই করা হয়নি। আমি যেহেতু শাকিবকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলাম আমি ধর্ম পরিবর্তন করার জন্যও প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু কোরআন শিক্ষা বা ধর্মান্তর এ কিছুই করা হয়নি।

আব্রাম খান জয়ের ধর্ম কী-এমন আমার ছেলে যেহেতু আমার সঙ্গে আছে সে আমার মতো করেই বড় হচ্ছে। সে তার বাবার সঙ্গে কখনও ঈদ করেনি। ভবিষ্যতের কথা তো বলতে পারব না, তবে আমার সন্তানকে নিয়ে তার বাবার আদরকে আমার কাছে ছেলেমানুষি মনে হয়। সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে আমি অনেক ভালো আছি। যখন ভালোবেসে বিয়ে করেছিলাম তখন তো আর জানতাম না আমার জীবনে এমন সময় আসবে। যেহেতু আমার কোনো ধর্মান্তর হয়নি, তাই আমি আমার ধর্মানুযায়ী চলছি এবং সেভাবেই চলতে চাই।

অপু এবার পূজা উদযাপন করবেন বলেও জানিয়েছেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন