করোনায় মৃত্যু হলে খিলগাঁওয়ের তালতলা কবরস্থানে দাফন

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের নির্দেশনা মোতাবেক করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও মোকাবিলার লক্ষ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। পাশাপাশি করোনায় কারও মৃত্যু হলে খিলগাঁওয়ের তালতলা কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) ডিএনসিসির ভবনে এক সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো. জামাল মোস্তফার সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়

করোনা প্রতিরোধে ডিএনসিসির কমিটিতে মেয়র সভাপতি এবং প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিব, প্রধান প্রকৌশলী, প্রধান সমাজ কল্যাণ ও বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা, জনসংযোগ কর্মকর্তা, ডিএনসিসি এলাকার সকল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, ঢাকা জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি, ঢাকা সিভিল সার্জন, ডিএনসিসি এলাকার সকল জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক, পরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা, বিভাগীয় উপপরিচালক, প্রাথমিক শিক্ষা; পরিচালক, ঢাকা বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়, পরিচালক, পরিবার পরিকল্পনা, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিনিধি, সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের প্রতিনিধি, স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিনিধি, এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) প্রতিনিধি। ডিএনসিসির স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এমদাদুল হক এ কমিটির ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে কাজ করবেন।

কমিটি করোনাভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির নির্দেশনা বাস্তবায়ন করবে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে সচেতনতা সৃষ্টি, প্রয়োজনে কোয়ারেন্টাইনসহ আর্থিক ও লজিস্টিক সহায়তার বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। করোনা সংক্রান্ত যেকোনো তথ্য পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসহ জাতীয় কমিটির পরামর্শ গ্রহণ করবে।

সভায় বলা হয়েছে, হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে। ডিএনসিসির কমিউনিটি সেন্টারগুলোতে জনসমাগম যাতে না হয় এ জন্য সেগুলো আপাতত উৎসব, অনুষ্ঠান ইত্যাদি বন্ধ থাকবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল হাই, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহ. আমিরুল ইসলাম, সচিব মোজাম্মেল হক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরিফ আহমেদ, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক সিরাজুল ইসলাম খান, মহিলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, উত্তরা এর পরিচালক ডা. মো. মুসফিকুর রহমান প্রমুখ।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com