করোনায় মৃত্যু বেড়ে ২৯৭৮

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) অ্যান্টার্কটিকা মহাদেশ ব্যতিত সকল মহাদেশে শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে বিশ্বের ৫৬টি দেশ ও অঞ্চলে ধরা পড়েছে এই ভাইরাস। ভয়াবহ আকার ধারণ করা এই ভাইরাসে শনিবার পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৯৭৮ জনে, যাদের মধ্যে ২৮৭০ জনই মারা গেছেন চীনে। আক্রান্ত হয়েছেন ৮৬ হাজার ৯৯১ জন।

চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯৮২৬ জন।  চীনের বাইরে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৩ হাজার ৫২৬ জনের শরীরে (কোভিন-১৯) শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে মারা গেছেন অন্তত ১৭ জন।

ইতালিতে ১১২৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ২৯ জন। হংকংয়ে আক্রান্ত ৯৫, মৃত্যু দুইজনের; জাপানে আক্রান্ত ২৪১, মৃত্যু পাঁচজনের; সিঙ্গাপুরে ১০২ জন করোনায় আক্রান্ত; যুক্তরাষ্ট্রে ৬৮ জনের শরীরে এই ভাইরাস পাওয়া গেছে। রবিবার এ খবর দিয়েছে করোনা নিয়ে লাইভ আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডমিটার।

ভাইরাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না হলে অন্যান্য দেশেও চীনের মতই মৃত্যুহার দেখতে হবে বলে মার্কিন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা সতর্ক করেছেন। উচ্চ থেকে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এরপর চীনের গণ্ডি পেরিয়ে তা বিশ্বব্যাপী দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। চীনের হুবেই প্রদেশের উহানের একটি সামুদ্রিক খাবারের বাজার থেকে এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘কোভিড-১৯ দিনে দিনে আক্রমণাত্মক হয়ে উঠছে। মানুষ থেকে মানুষে ছড়িয়ে পড়ছে দ্রুত। কিছু রোগীর কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না, তাদের মাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়ছে’। এই রোগের কোনো প্রতিষেধক এবং ভ্যাকসিন নেই।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com