প্রবাসীর ঘরে ইয়াবার পাইকারি বাজার

কক্সবাজারের রামু থেকে ১০ হাজার ইয়াবা ও নগদ ২৫ লাখ টাকাসহ সমিরা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি দুবাই প্রবাসী মোহাম্মদ জয়নালের স্ত্রী। ভাইকে সাথে নিয়ে নিজ বসত ঘরেই সমিরা খুলে বসেছিলেন ইয়াবার পাইকারি বাজার। সমিরাকে গ্রেপ্তারের পর মঙ্গলবার জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) জানিয়েছে এসব তথ্য।

কক্সবাজার ডিবির পরিদর্শক শেখ আশরাফুজ্জামান জানান, সমিরার ইয়াবা কারবার বেশ পুরনো। আগে থেকে তাকে সন্দেহ করা যায়নি। কক্সবাজারের রামুতে বসেই তিনি ইয়াবার কারবার চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তার স্বামী দুবাই থাকেন। এ অবস্থায় আপন ভাইসহ কয়েকজনকে নিয়ে দেদারছে ইয়াবা বিক্রি করছিলেন।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজোয়ান আহমেদ জানান, সোমবার সন্ধ্যা থেকে অভিযান ও তল্লাশি চলে সমিরার ডেরায়। রামু সেনানিবাস সংলগ্ন রাজারকুলের নয়াপাড়া এলাকায় তার বসতবাড়ি। দুবাই প্রবাসী মোহাম্মদ জয়নালের স্ত্রী সমিরাকে আটক করা হয় এ বাড়ি থেকেই। ইয়াবার এ কারবারে সামিল সমিরার ভাই আবদুর রহমান। ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভাই-বোন ইয়াবা পাচার করেন বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, রবিবার রামু এলাকা থেকে ডিবি পুলিশ ১ লাখ ৯০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে। সেই মামলার পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে চলছিল নজরদারি। এরই মাঝে সোমবার রাতে আবদুর রহমান নামে একজন ইয়াবা কারবারিকে আটকের চেষ্টা হয়। তখন জানা যায় রহমানের বোন সমিরা হচ্ছেন ইয়াবা জগতের মক্ষীরাণী। ভাইবোন মিলে মিয়ানমার সীমান্ত ও রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ইয়াবার চালান সংগ্রহ করেন। এরপর দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করেন। আবার বিভিন্ন এলাকার ইয়াবা কারবারিরা রামুতে সমিরার বাড়িতে আসেন। পাইকারি কারবারের লেনদেন চলে এখানেই।

পুলিশ সোমবার রাতে যখন সমিরার বাড়ি ঘিরে ফেলে তখন তিনি নিতান্তই গৃহবধূর বেশে নিজের ঘরে অবস্থান নেন। নিশ্চিত তথ্য থাকায় ডিবির টিম রাতভর তল্লাশি চালিয়ে ইয়াবা ও নগদ টাকাসহ সমিরাকে আটক করে। অভিযানের আগেই আবদুর রহমান এ বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। ভাইকে গ্রেপ্তার ও আরো ইয়াবার চালান উদ্ধারে সমিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com