এক রাতে দুই জনের আত্মহত্যা

প্রেমে ব্যর্থ, পারিবারিক কলহের জেরে নাটোরের গুরুদাসপুরে এক রাতে দুই জন আত্মহত্যা করেছে। কিছুদিন আগে তিন ভাই বোনের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থী ভাই পলাশ, বোন শাপলা একসাথে আত্মহত্যা করে মারা যায়। এরপর একমাত্র ছোট বোন শান্তনা (১৫) গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন। গতকাল শুক্রবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবছরই ওই পরিবারে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটছে। এমন আত্মহত্যার ঘটনায় শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী। শান্তনার বাড়ি গুরুদাসপুর পৌর সদরের উত্তরনারীবাড়ি মহল্লায়। শান্তনা ওই এলাকার শুকচানের মেয়ে। উত্তর নারীবাড়ির কমিশনার মজিবুর রহমান বলেন, এর আগে এই পরিবার থেকে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। পারিবারিক কলহের জেরে ওই ঘটনা ঘটেছিল।

এদিকে, একই রাতে পার্শ্ববর্তী সাবগাড়ি এলাকায় ইতিয়ারা নামের এক গৃহবধূ পাঁচ মাসের সন্তান রেখে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। পুলিশ সকালে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কিশোরী শান্তনা প্রেমে ব্যার্থ হয়ে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এছাড়া পুলিশ সদস্যের স্ত্রী ইতিয়ারাকে যৌতুকের কারণে প্রায়ই নির্যাতনের শিকার হতে হতো।

চাচা সাবেক অধ্যক্ষ ওমর আলী বলেন,  বিয়ের সময় ইতিয়ারার স্বামী এনামুলকে ৮ লাখ টাকা যৌতুক দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এতো টাকা পাওয়ার পরও বিয়ের পর থেকেই ইতিয়ারাকে শারীরিক নির্যাতন করা হতো। পাঁচ মাস আগে ইতিয়ারার কোলজুড়ে একটি সন্তান আসে। তবুও কম ছিলনা নির্যাতনের মাত্রা। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোজাহারুল ইসলাম বলেন, আত্মহত্যার শিকার লাশ দুটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। আত্মহত্যার কারণ অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আজকের দিন-তারিখ
  • বুধবার (ভোর ৫:৩৪)
  • ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com