যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও অস্ত্র কিনছে ভারত

চীন পাকিস্তান সীমান্তে নিয়োজিত সেনা সদস্যদের জন্য যুক্তরাষ্ট্র থেকে নতুন করে অস্ত্র সামরিক সরঞ্জাম কেনার অনুমোদন দিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় প্রায় ৭২ হাজার সিগ সয়ার অ্যাসল্ট রাইফেলসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম কিনতে মোট দুই হাজার দুইশনব্বই কোটি রুপি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দেশটির প্রতিরক্ষা ক্রয় কাউন্সিলের (ডিএসি) বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয় ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর কেনাকাটার সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সর্বোচ্চ সংস্থা এই কাউন্সিল সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছেভারতের প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত কেনাকাটার বড় উৎস যুক্তরাষ্ট্র। বিভিন্ন সময়ে দেশটি থেকে কোটি কোটি ডলারের সামরিক সরঞ্জাম কিনেছে দিল্লি। সোমবার অ্যাসল্ট রাইফেল ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র থেকে যেসব অস্ত্র ক্রয়ের অনুমোদন ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দিয়েছে তার মধ্যে ৯৭০ কোটি রুপিতে বিমান বাহিনী ও নৌবাহিনীর জন্য অত্যাধুনিক বিমানঘাঁটি বিধ্বংসী অস্ত্রও (এসএএডব্লিউ) রয়েছে।

ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী রাজনাথ সিং এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিভিন্ন অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়। এর মধ্যে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সম্মুখসারির সদস্যদের জন্য ৭২ হাজার সিগ সয়ার অ্যাসল্ট রাইফেল কিনতে ব্যয় হবে ৭৮০ কোটি রুপি।

গত কয়েক বছর ধরেই ভারতীয় সেনাবাহিনী অস্ত্র আধুনিকায়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এর আওতায় ইতোমধ্যে বিপুল সংখ্যক হাল্কা মেশিন গান, ব্যাটেল কার্বাইন ও অ্যাসল্ট রাইফেল কেনা হয়েছে। আর তা দিয়ে একই ধরণের পুরনো অস্ত্র বদলে ফেলা হয়েছে।

২০১৭ সালের অক্টোবরে ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রায় সাত লাখ রাইফেল, ৪৪ হাজার হাল্কা মেশিন গান (এলএমজি) এবং প্রায় ৪৪ হাজার ছয়শ’ কার্বাইন কেনার প্রক্রিয়া শুরু করে। ভারত সরকার বলছে, পাকিস্তান ও চীন সীমান্ত পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করে অস্ত্র আধুনিকায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

প্রাণঘাতি অস্ত্র ছাড়াও যুদ্ধক্ষেত্রে যোগাযোগ বজায় রাখতে ৫৪০ কোটি রুপি ব্যয়ে উচ্চ প্রযু্ক্তির রেডিও সরঞ্জাম কেনারও অনুমোদন দিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এইচএফ রেডিও সেটগুলোর সাহায্যে যুদ্ধক্ষেত্রে মোতায়েনরত সেনা সদস্য ও বিমান বাহিনীর মধ্যে সিমবিহীন যোগাযোগ আরও সহজ হবে।

উল্লেখ্য, ভারত এমন এক সময়ে এসব অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম কিনছে যখন পূর্ব লাদাখে চীনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে তাদের অচলাবস্থা চলছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com